1. iliycharman7951@gmail.com : admin :
  2. support@wordpress.org : support :
মাতামুহুরী নদীর তীর পয়েন্টে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ জরুরী - matamuhuri - মাতামুহুরী
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৫৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সূর্যমুখী চাষে লাভের স্বপ্ন দেখছেন লামার কৃষক স্বজরাম ত্রিপুরা রওশন-ফেরদৌস গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন কক্সবাজারের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন করেন কুটনীতিকরা বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে আমার বক্তব্য দুদকের মামলায় স্ত্রী সহ কারাগারে শাহজাহান আনচারী বিলছড়ি হেব্রোণ মিশনে বার্ষিক উপহার বিতরণ কালোবাজারী হাত থেকে কোন ভাবেই থামানো যাচ্ছে না কক্সবাজার রুটের ট্রেনের টিকিট জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচন সম্পন্ন : জসিম আবছার জাহিদ হেলাল হারুন মুকুল জয় সহ ২৭ জন জয়ী জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচন শনিবার : ২৩ পদে লড়ছেন ৩৫ জন প্রার্থী প্রধানমন্ত্রী একবার যাকে দুরে টেলে দেন, তাকে আর কাছে আসতে দেন না

মাতামুহুরী নদীর তীর পয়েন্টে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ জরুরী

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • আপডেট : সোমবার, ৪ জুলাই, ২০২২
  • ৩৯৮ পঠিত

কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সাংসদ জাফর আলম বলেছেন, ভৌগলিক কারণে প্রমত্তা মাতামুহুরী নদী ঘিরে রেখেছে পুরো চকরিয়া উপজেলাকে। নদীর উজানে তথা বান্দরবানের লামা আলীকদমে ব্যাপক পাহাড় নিধন, পাথর উত্তোলন ও বনাঞ্চলের গাছ কাটার ফলে প্রতিবছর বর্ষাকালে নদীতে পাহাড়ি পলি মাটি নেমে এসে মাতামুহুরী নদীতে নাব্যতা তৈরী করছে। তাতে বর্ষাকালে নদীর তীর উপচে লোকালয়ে প্রবাহিত হয় বানের পানি। এই অবস্থায় প্রতিবছর নদী ভাঙন তীব্রতা বাড়ছে, এতে উপজেলার বিভিন্ন জনপদের বসতবাড়ি, আবাদি জমি, রাস্তাঘাট, বির্স্তীণ বেড়িবাঁধ ছাড়াও গুরুত্বপুর্ণ স্থাপনা বিলীন হচ্ছে।
সাংসদ জাফর আলম বলেন, বন্যা জলোচ্ছ¡াস ও মাটিধসের তান্ডব মোকাবেলার মাধ্যমে সুরক্ষিত চকরিয়া উপজেলা বির্নিমানে সরকারের সুদুরপ্রসারি পরিকল্পনা প্রয়োজন। শ্রেণী-পেশার নাগরিকদের অংশগ্রহণে তৃনমুল পর্যায় থেকে ডাটাবেজ তৈরী এবং জনপ্রতিনিধিসহ সামাজিক নিরাপত্তার সঙ্গে জড়িত সবার মতামত নিয়ে একটি মাস্টারপ্যান তৈরী করতে হবে। সেই মাস্টারপ্ল্যান জাইকার মতো সংস্থা সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রানালয়ের তুলে ধরলে ঘুর্ণিদুর্গত জনপদে সম্ভাবনাময় বিপদ থেকে যেমন জনগন রক্ষা পাবে, তেমনি প্রতিটি জনপদে ঝুঁিক হৃাস অনেকাংশে কমে যাবে। সর্বোপুরি আগামী প্রজন্মের জন্য একতটি সুরক্ষিত চকরিয়া বির্নিমান করতে হলে মাতামুহুরী নদীর তীর পয়েন্টে টেকসই বেড়িবাঁধ এবং আর সিসি বøকদ্বারা নিরাপত্তা বেস্টনী নির্মাণ জরুরী। পাশাপাশি দুর্যোগপ্রবণ এলাকার সড়ক-উসড়ক গুলো একেবারে আরসিসি দ্বারা নির্মাণ করতে হবে। যার মাধ্যমে সরকারের টাকাও প্রতিবছর গচ্ছা থেকে বাঁচবে, অন্যদিকে সরকারের উন্নয়ন সুফলও জনগন সহজে ভোগ করতে পারবে। সোমবার ৪ জুলাই সকালে চকরিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন মোহনায় সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর (ডিডিএম) অধীনে ও জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো অপারেশন এজেন্সির (জাইকা) সহযোগিতায় শ্রেণীপেশার নাগরিকদের নিয়ে আয়োজিত মতবিনিময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ জাফর আলম এসব কথা বলেন।
জাইকার আওতাধীন দি প্রজেক্ট ফর ক্যাপাসিটি এনহেন্সম্যান্ট অন ফরমুলেশন এন ইমপ্লিমেন্টশন অব লোকাল ডিজেস্টার রিস্ক রিডাকশান প্ল্যান প্রকল্পের সর্ম্পকিত তথ্য, প্রকল্পের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যে সর্ম্পকে ধারণা দিতে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর (ডিডিএম) অধীনে ও জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো অপারেশন এজেন্সি (জাইকা)।
চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেপি দেওয়ান সভায় সভাপতিত্ব করেন। এতে সম্মাণিত অতিথি ছিলেন জাইকা এক্সপাট টিমের সদস্য জাপানি নাগরিক জোন অনুডেরা। অনুষ্ঠানে প্রকল্পের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে ধারণামুলক বক্তব্য দেন জাইকা এক্সপাট টিম বাংলাদেশ অঞ্চলের সদস্য বিমল কান্তি কুরি।
প্রকল্পের পরিকল্পনা নিয়ে প্রামাণ্যচিত্র উপস্থাপন ও করণীয় নিয়ে আলোচনা করেন জাইকা এক্সপাট টিমের সদস্য প্রকৌশলী রাকিবুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য চকরিয়া উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) মো.রাহাত উজ্জামান, চকরিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মকছুদুল হক ছুট্টু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন হক জেসি চৌধুরী, চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী, বাংলা জার্মান সম্প্রীতির (বিজিএস) নির্বাহী পরিচালক পেয়েইন স্বই ইউ মার্মা। উপস্থিত ছিলেন জাইকা এক্সপাট টিমের সদস্য আবু হেনা মোস্তাফা কামাল, টিমের সদস্য সাম্মা হক।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে প্রকল্পের অগ্রগতি ও উদ্দেশ্য সর্ম্পকে মতামত দেন চকরিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এসএম নাছিম হোসেন, উপজেলা প্রকৌশলী জাহেদুল আলম চৌধুরী, সুরাজপুর-মানিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম, বিএমচর ইউপি চেয়ারম্যান এসএম জাহাংগীর আলম, হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান মেহেরাজ উদ্দিন মিরাজ, কৈয়ারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মক্কী ইকবাল হোসেন, ফাসিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো.হেলাল উদ্দিন, বরইতলী ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ছালেকুজ্জামান, বদরখালী ইউপি চেয়ারম্যান নুৃরে হোছাইন আরিফ, পুর্ববড় ভেওলা ইউপি চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াছমিন মুন্না, ডুলাহাজারা ইউপি চেয়ারম্যান হাসানুল ইসলাম আদর প্রমুখ। এছাড়াও অনুষ্ঠানে সরকারি বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও শ্রেণী-পেশার নাগরিক উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও খবর

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Theme Customized BY Iliaych