1. iliycharman7951@gmail.com : admin :
  2. support@wordpress.org : support :
চকরিয়ায় সিফাতকে অপহরণের দুই ঘন্টা পর মূর্মুষ অবস্থায় উদ্ধার - matamuhuri - মাতামুহুরী
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১২:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সূর্যমুখী চাষে লাভের স্বপ্ন দেখছেন লামার কৃষক স্বজরাম ত্রিপুরা রওশন-ফেরদৌস গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন কক্সবাজারের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন করেন কুটনীতিকরা বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে আমার বক্তব্য দুদকের মামলায় স্ত্রী সহ কারাগারে শাহজাহান আনচারী বিলছড়ি হেব্রোণ মিশনে বার্ষিক উপহার বিতরণ কালোবাজারী হাত থেকে কোন ভাবেই থামানো যাচ্ছে না কক্সবাজার রুটের ট্রেনের টিকিট জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচন সম্পন্ন : জসিম আবছার জাহিদ হেলাল হারুন মুকুল জয় সহ ২৭ জন জয়ী জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচন শনিবার : ২৩ পদে লড়ছেন ৩৫ জন প্রার্থী প্রধানমন্ত্রী একবার যাকে দুরে টেলে দেন, তাকে আর কাছে আসতে দেন না

চকরিয়ায় সিফাতকে অপহরণের দুই ঘন্টা পর মূর্মুষ অবস্থায় উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক ::
  • আপডেট : শুক্রবার, ৭ অক্টোবর, ২০২২
  • ৭৭৭ পঠিত

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ওবাইদুল হাসান সিফাত (২৫) নামের এক যুবককে অপহরণের দুই ঘন্টা পর মূর্মুষ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে উপজেলার চিরিঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সামনে থেকে সশস্ত্র ডাকাত দল অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে তাকে নিয়ে যায়। সিফাত উপজেলার চিরিঙ্গা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের চরণদ্বীপ এলাকার বাসিন্দা আনোয়ার হোসেনের পুত্র। পুলিশ যাওয়ার আগেই সন্ত্রাসীদের কবল থেকে সিফাতের আত্মীয়স্বজন উদ্ধার করে হাসপাতারে নিয়ে আসে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা, চিরিঙ্গা ইউনিয়নের চরণদ্বীপ এলাকার আনোয়ার হোসেনের পুত্র ওবাইদুল হাসান সিফাত। পেশায় একজন রিকসা মেকানিক। শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে সিফাত তার দোকানের জন্য কিছু মালামাল আনতে টমটম গাড়ি করে চকরিয়ার চিরিঙ্গা পৌরশহর যাচ্ছিলেন। ওইসময় সিফাত চিরিঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সামনে পৌছলে ৪-৫জনের একদল সন্ত্রাসী সিফাতের পথরোধ করে। একপর্যায়ে টমটম গাড়ি থেকে সিফাতকে অস্ত্রের মুখে অপর আরেকটি টমটম গাড়িতে তুলে সওদাগরঘোনা খালের মাথা এলাকায় নিয়ে যায়। এসময় সিফাত শোর চিৎকার দিলে বিষয়টি জানাজানি হয়। পরে চকরিয়া থানা পুলিশ ও স্বজনকে অবগত করা হলে পুলিশ চিরিঙ্গা ইউনিয়নের সওদাগরঘোণা খালের মাথা স্থান থেকে তাকে মূমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে। সিফাতের বাম হাত ও ডান পা সম্পূর্ন ভেঙ্গে দেয় সন্ত্রাসীরা। শরীরের বিভিন্ন অংশে পিটিয়ে মারাত্মক জখম করা হয়েছে।
এদিকে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চকরিয়া হাসপালের চিকিৎসকরা তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
সিফাতের পিতা আনোয়ার হোসেন বলেন, তার পুত্রকে অপহরণ করে সন্ত্রাসীরা পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবী করে। টাকা গুলো না দিলে জবাই করারও হুমকি দেয়। আমরা যথাসময়ে পুলিশ না জানালে হয়তো জীবিত পেতাম না সিফাতকে।
চিরিঙ্গা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন বলেন, ওবাইদুল হাসান সিফাত আমার নিকটতম আত্মীয় হয়। সে রিকসা মেকানিক কাজ করে। চরণদ্বীপ থেকে চিরিঙ্গা যাওয়ার পথে ইউনিয়ন পরিষদের সামনে চিহিৃত ৪-৫ জন সন্ত্রাসী অস্ত্রের মুখে সিফাতকে তুলে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে পুলিশ ও আমরা খোজাখুজি করে সওদাগরঘোণা এলাকা থেকে উদ্ধার করেছি। তবে তার একটি পা ও হাত সম্পূর্ন ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে। শরীরের একাধিক স্থানে জখম রয়েছে।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন পরিবারের লোকজনের কাছ থেকে খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। কিন্তু এর আগেই সিফাতের স্বজনেরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। তবে এ বিষয়ে এখনও কেউ এজাহার দেয় নাই। এজাহার পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও খবর

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Theme Customized BY Iliaych