1. iliycharman7951@gmail.com : admin :
  2. support@wordpress.org : support :
বিশাল এলাকা পাহাড় কেটে সাবাড় করেছে ট্যুায়াক সম্পাদক পল্লব : প্রশাসনের অভিযান মামলার নির্দেশ - matamuhuri - মাতামুহুরী
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দুদকের মামলায় স্ত্রী সহ কারাগারে শাহজাহান আনচারী বিলছড়ি হেব্রোণ মিশনে বার্ষিক উপহার বিতরণ কালোবাজারী হাত থেকে কোন ভাবেই থামানো যাচ্ছে না কক্সবাজার রুটের ট্রেনের টিকিট জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচন সম্পন্ন : জসিম আবছার জাহিদ হেলাল হারুন মুকুল জয় সহ ২৭ জন জয়ী জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচন শনিবার : ২৩ পদে লড়ছেন ৩৫ জন প্রার্থী প্রধানমন্ত্রী একবার যাকে দুরে টেলে দেন, তাকে আর কাছে আসতে দেন না চকরিয়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দেওয়া নিয়ে সাবেক সাংসদ জাফরের নেতৃত্বে বিশৃঙ্খলা ও সাধারণ মানুষকে অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে শহরের ২টি প্রাইভেট হাসপাতালে অভিযান চকরিয়ায় ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা সম্পন্ন চকরিয়া সোসাইটি বায়তুল মাওয়া শাহী জামে মসজিদ কমিটি গঠনে প্রশাসনের তিন সদস্যের কমিশন গঠন

বিশাল এলাকা পাহাড় কেটে সাবাড় করেছে ট্যুায়াক সম্পাদক পল্লব : প্রশাসনের অভিযান মামলার নির্দেশ

মাহবুবুর রহমান, কক্সবাজার ::
  • আপডেট : সোমবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৯৮ পঠিত

কক্সবাজার শহরের কলাতলী এলাকায় সরকারি পাহাড় কেটে বিরানভুমিতে পরিণত করার স্থানে অভিযান পরিচালনা করেছে প্রশাসন। ১৫ফেব্রুয়ারি দুপুর আড়াইটার সময় কক্সবাজারের উপজেলা নির্বাহী অফিসার সম্রাট খীসার নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় পাহাড় কাটার স্থানটির প্রধান গেইটে তালা দিয়ে বন্ধ করা সহ পরিবেশ অধিদপ্তরকে মামলার নির্দেশ দেন সদর ইউএনও। এসময় দেখা যায় কক্সবাজার শহরের সর্বাধিক পরিচিত কুটুবাড়ি রেষ্টুরেন্টের মালিক ও কক্সবাজার ট্যুর অপারেটর এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক নুরুল কবির পল্লবের নেতৃত্ব বিপুল শ্রমিক নিয়োগ দিয়ে এবং স্কেবেলটার দিয়ে সরকারি খাস জমিতে থাকা পাহাড় কেটে বিলীন করে ফেলেছে। প্রায় এক মাসের বেশি সময় ধরে এই পাহাড় কাটা হচ্ছে বলে জানান স্থানীয়রা। সর্বশেষ বিষয়টি গণমাধ্যমে উঠে আসলে টনক নড়ে প্রশাসনের। তারিধারাবাহিকতায় সোমবার এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এসময় সাংবাদিকদের কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সম্রাট খীসা বলেন, এখানে ব্যাপক হারে পাহাড় কাটা হচ্ছে এমন খবর পেয়ে আমি বরিবার রাত ১২টার দিকে সরজমিনে এসে অভিযান পরিচালনা করি।
এসময় আমি দেখেছি স্কেবেলটার দিয়ে পাহাড় কাটা হচ্ছে। তার প্রেক্ষিতে সোমবার আবার এসে আইনী পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। এখান থেকে পাহাড় কাটার সরাজ্ঞাম উদ্ধার করা হয়েছে। পরিবেশ অধিদপ্তরকে সংশ্লিষ্ট আইনে দ্রুত দায়ী নুরুল কবির পল্লব সহ আরো যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে মামলার করার জন্য বলা হয়েছে।

তিনি বলেন,পাহাড় কাটার সাথে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। এসময় অভিযানে কক্সবাজার সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি নুরুল আজিম ফারুকী, কক্সবাজার পরিবেশ অধিপ্তরের উপসহকারী পরিচালক আবদুস সালাম,সদর ভুমি অফিসের তহসিলদার ছৈয়দ নুর বিপুল সংখ্যাক পুলিশ সদস্য ছাড়াও প্রশাসনের লোকজন উপস্থিত ছিলেন। এসময় কলাতলী এলাকাবাসীর মধ্যে আবছার,খালেক সহ অনেকে বলেন, এখানে পাহাড় বলতে কিছু বাকী নেই সব রাঘববোয়ালরা খেয়ে ফেলেছে, এখনো অন্তত ২০টি স্পটে পাহাড় কাটা চলছে। তবে নামে মাত্র প্রশাসন একটি স্থানে অভিযান পরিচালনা করেছে তাও ভাল, আমরা আশা করি বাকি স্থানেও অভিযান চলবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও খবর

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Theme Customized BY Iliaych