রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
এবার ঈদে ঘরমুখো মানুষদের যাত্রা পথ সহজ ও নিরাপদ করতে সড়কের পাশে অবৈধ হাটবাজার ও স্থাপনা উচ্ছেদ কক্সবাজারের ট্রেনের টিকিট যাচ্ছে কোথায়? চকরিয়ায় জেলে কার্ড দেয়ার প্রলোভনে টাকা আত্মসাত মৎস্য অফিসের তিন কর্মচারীর বিরুদ্ধে মামলা চকরিয়ায় অটোরিকশার নিচে চাপা পড়ে যুবক নিহত জেলা আওয়ামী লীগ নেতা কমরুউদ্দিনের জানাজায় শোকাহত মানুষের ঢল চকরিয়ায় হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার চকরিয়ায় এক ওয়ার্ডের বরাদ্দের টাকা অন্য ওয়ার্ডের রাস্তার কাজ দেখিয়ে অর্থ আত্মসাতের পাঁয়তারা? বমুবিলছড়ি ইউনিয়নে গোদী নিলামে অনিয়মের অভিযোগ প্রথম আলো বন্ধুসভা চকরিয়ার বন্ধু বরণ ও ইফতার মাহফিল কক্সবাজার ট্রাফিক পুলিশের স্মার্ট কক্স-ক্যাব

কক্সবাজার ট্রাফিক পুলিশের স্মার্ট কক্স-ক্যাব

মাহবুবুর রহমান, কক্সবাজার ::
  • সময় : রবিবার, ৩১ মার্চ, ২০২৪
  • ৬২ পঠিত

কক্সবাজারে পর্যটক সুরক্ষা ও হয়রানি থেকে বাচাঁতে টমটম, টুরিস্ট জিপ, বাস সহ সকল যানবাহনের ডিজিটাল ডাটাবেজ করেছে জেলা ট্রাফিক বিভাগ। বাংলাদেশে প্রথম পর্যটক সুরক্ষায় পর্যটন এলাকায় গাড়ি চালকদের ডাটাবেজ সম্বলিত বারকোড রাখা হয়েছে প্রতিটি ইজিবাইক ও টুরিস্ট জীপ ও বাসে। যার নাম দেওয়া হয়েছে কক্স-ক্যাব । যার ফলে কোন গাড়ি চালক পর্যটকদের সাথে কোন খারাপ আচারণ করলে সরাসরি অভিযোগ জানানোর ব্যবস্থা রয়েছে । যারা পর্যটন এলাকায় যানবাহন চালাবেন তাদের ডাটাবেজ সংগ্রহ করে ছবি সম্বলিত বারকোডসহ একটি কার্ড গাড়ি চালকের পেছনে ঝুলানো থাকবে। আর এই কার্ডের বারকোর্ড স্ক্যান করলেই গাড়ি চালকের বিস্তারিত তথ্য চলে আসবে মোবাইলে। পর্যটন এলাকায় ইজিবাইক চালকদের যাচাই বাচাই করে তাদের ইউনিফর্ম হিসাবে দেওয়া হয়েছে হাতকাটা পিংক কালারের ড্রেস বা ভেন্ট । কোন গাড়ি চালক যদি পর্যটকের সাথে খারাপ আচারণ করে পুলিশের হটলাইন নাম্বার অথবা ৯৯৯ এ কল করে অভিযোগ জানাতে পারবে পর্যটকগণ। এছাড়া নতুন করে গ্যারেজ মালিক এবং গ্যারেজ নিবন্ধন সহ তাদের তথ্য সংগ্রহ করছে ট্রাফিক পুলিশ। যাতে কোন রোহিঙ্গা আর গাড়ি নিয়ে শহরের রাস্তায় নামতে না পারে।

কক্সবাজার ট্রাফিক বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন , কক্সবাজার হচ্ছে শুধু বাংলাদেশ নয় বিশ্বের অন্যতম একটি আকর্ষনীয় পযটন নগরী। তাই এই কক্সবাজারের সব কিছু হতে হবে পর্টন বান্ধব। আমরা ট্রাফিক বিভাগের পক্ষ থেকে পর্যন্ত ৪ হাজার ২২৪ টি  ইজিবাইক, ১৩১ টি টুরিস্ট জীপ ও ৪০ টি টুরিস্ট বাসসহ মোট ১২শ গাড়ি চালককে নিবন্ধন ডাটাবেজের আওতায় এনেছি। তাদের বারকোড সস্বলিত কার্ড ও পিংক কালারের ড্রেস বা ভেন্ট প্রদান করা হয়েছে। এভাবে পর্যায়ক্রমে পর্যটন এলাকার সকল গাড়ি চালককে ডাটাবেজের আওতায় আনা হবে বলে জানান তিনি।

ট্রাফিক এসএসপি জানান, কক্স ক্যাবে অন্তর্ভুক্ত যানবাহনের চালক যদি কোন ট্রাফিক আইন অমান্য করে দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশ উক্ত গাড়িটির নামে কক্স-ক্যাবে ডাটাবেজ’ এর ‘কম্পলেইন বক্সে’ উক্ত বিষয়টি রেকর্ড রাখতে পারবেন। যতবার ট্রাফিক আইন অমান্য করবে ততবার রেকর্ড থাকবে।  কক্স-ক্যাব ডাটাবেজে চালকদের ট্রাফিক আইন বিরোধী কার্যকলাপ কিংবা ফৌজধারী অপরাধের সাথে জড়ানোর উপর ভিত্তি করে “ওয়ার্নিং’ ‘নেগেটিভ’ ও ‘ব্ল্যাক-লিস্টেড’ ক্যাটাগরিভুক্ত করার ব্যবস্থা রয়েছে। কোন চালক পর্যটন এলাকায় ছিনতাই বা চুরির মত অপরাধে জড়িত হয়ে ফৌজধারী মামলায় অভিযুক্ত হলে তাকে ব্ল্যাক লিস্টেড তালিকাভুক্ত করে অনিরাপদ চালক হিসেবে বিবেচিত করা হবে বলে জানান ট্রাফিক বিভাগ।

ট্রাফিক বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, ইতিমধ্যে রোহিঙ্গা অটো চালকদের বিরুদ্ধেও আমরা কাজ শুরু করেছি। আমরা জেনেছি গ্যারেজ মালিকরা স্থানীয়দের কাছ থেকে ৮০০ টাকা আর রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে এক হাজার টাকা ভাড়া নেয়। তাই ২০০ টাকা বেশি নেওয়ার জন্য অনেক গ্যারেজ মালিক রোহিঙ্গাদের টমটম বি অটো ভাড়া দেয়। আমরা এখন গ্যারেজের তালিকা করছি, কোন গ্যারেজে কতটি গাড়ি থাকে। তারা কাকে কাকে ভাড়া দেয়, সে সববিষয়েও আমরা তদারকি করবো। এতে রোহিঙ্গাদের গাড়ি চালকরা বেশি সুবিধা করতে পারবে না। আর যারাই রোহিঙ্গাদের গাড়ি ভাড়া দেবে তাদের আইনের আওতায় আনতে সহজ হবে।

এ ব্যাপারে কক্সবাজার পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র সালাউদ্দিন সেতু বলেন, পর্যটন নগরী কক্সবাজারের আকর্ষণীয় বালিয়াড়ি সৈকত এবং পাহাড় ও সমুদ্রের মিতালীতে নির্মিত দৃষ্টিনন্দন মেরিন ড্রাইভ শুধু বাংলাদেশের ভ্রমণ পিপাসুদের নয়, সারা পৃথিবীর পর্যটকদের কাছে একটি আকর্ষণীর পর্যটন স্পট। প্রতিদিন প্রায় লক্ষাধিক পর্যটক নৈসর্গিক প্রাকৃতিক সৌন্দর্য  উপভোগ করার জন্য কক্সবাজারে আসেন। পর্যটকদের জন্য উন্নতমানের হোটেল, রিসোর্ট, রেস্টুরেন্ট সহ নানা অবকাঠামো তৈরী হলেও কক্সবাজার পর্যটন এলাকায় পর্যটন-বান্ধব, উন্নত ও নিরাপদ যানবাহন সুবিধা এখনো তৈরি হয়নি। কক্সবাজার পৌর এলাকায় রিক্সা, পৌরসভার নিবন্ধিত ৩ হাজার ইজিবাইক (টমটম), ৩ হাজার সিএনজি চালিত অটোরিক্সা, শতাধিক ট্যুরিস্ট জীপ, শতাধিক কার-মাইক্রো-মিনিবাস চলাচল করে থাকে। কার-মাইক্রো বাস-মিনিবাসের চালকদের ড্রাইভিং লাইসেন্স নিশ্চিত করা গেলেও পর্যটন এলাকায় চলাচলরত যানবাহনের সিংহভাগের অর্থাৎ ৮ সহস্রাধিক রিক্সা-টমটম-ইজিবাইক চালকদের কোন তথ্য ট্রাফিক বিভাগ কিংবা সরকারি কোন সংস্থার কাছে নেই। তাছাড়া কক্সবাজারের আশ্রয় নেয়া ১২ লক্ষাধিক মায়ানমারের বাস্তচ্যুত নাগরিকদের মধ্যেও অনেক রোহিঙ্গা জীবিকার তাগিদের পর্যটন এলাকায় এসে বাংলাদেশী পরিচয় দিয়ে গাড়ি চালায় বলে তথ্য প্রমান পাওয়া যাচ্ছে। পৌর এলাকায় চলাচলরত সকল যানবাহন ও চালকদের একটি স্মার্ট ডাটাবেজ তৈরী করার উদ্যোগ নেওয়ায় আমি পৌরসভার পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি ।

সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজন জেলা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক অজিত দাশ জানান, বর্তমানে কক্সবাজারের সর্বত্র ব্যাপক হারে রোহিঙ্গারা ডুকে পড়েছে । তারা ভুয়া আউডি কার্ড বানিয়ে বিভিন্ন জায়গায় কাজ করছে । তাছাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে তারা সহজে বের হতে পারায় অপরাধ প্রবণতা বেড়েছে শহরে। পর্যটন এলকায় অপরাধ সংগঠিত করে নিরাপদভাবে আবার তারা ক্যাম্পে ফিরে যেতে পারছে । আবার অনেকে ইজিবাইক চালক হিসাবে ছিনতাইয়ের মতো  অপরাধ করছে। এসব থেকে রেহায় পেতে এমন একটি উদ্যোগ প্রশংসার দাবি রাখে। আমা করছি এর মাধ্যমে যেসব রোহিঙ্গা ইজিবাইক চালক আছে তারা চিহ্নিত হবে এবং তাদের বিরোদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিবে পুলিশ প্রশাসন।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মোঃ মাহফুজুল ইসলাম জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার পূর্বশর্ত হচ্ছে শহর গুলোকে স্মার্ট সিটিতে রুপান্তর করা। আর স্মার্ট সিটির অনিবার্য অংশ হচ্ছে স্মার্ট ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা। পর্যটন নগরী কক্সবাজারে নিরাপদ ও পর্যটন-বান্ধব স্মার্ট ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা পড়ার লক্ষ্যে কক্সবাজার ট্রাফিক পুলিশের উদ্যোগে নির্মিত চালক ও যানবাহনের স্মার্ট ডাটাবেস ‘কক্স-ক্যাব’ স্মার্ট কক্সবাজার সিটি গড়তে উল্লেখ্যযোগ্য ভূমিকা রাখবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে দুর্বার গতিতে। স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি হয়ে উঠছে জীবনের অনিবার্য অংশ। পর্যটন নগরী কক্সবাজারকে নিরাপদ ও পর্যটন-বান্ধব স্মার্ট সিটি গড়ার অগ্রযাত্রায় শামিল হতে পেরে ট্রাফিক বিভাগ, জেলা পুলিশ কক্সবাজার সত্যিই গর্বিত।

 

https://www.facebook.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2018 News Smart
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com