বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৪:৪৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
চকরিয়ায় সিএনজি আটকিয়ে ছিনতাইয়ের প্রস্তুতি অস্ত্রসহ চার ছিনতাইকারী গ্রেফতার চকরিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দলিল লেখকের সহকারীর মৃত্যু মিডিয়াতে আবর্জনা ঢুকে গেছে সেটা পরিস্কার করতে হবে–প্রেস কাউন্সিল চেয়ারম্যান নিজামুল হক স্মার্ট বাংলাদেশ বির্নিমানে স্মার্ট কর্মী তৈরী করতে হবে–বিশেষ বর্ধিত সভায় সিআইপি এবার বৃক্ষরোপণে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কার পেল লামার কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন সাংবাদিক বেলালের পিতার ৫ম মৃত্যুবার্ষিকীর মিলাদ ও মাহফিল চকরিয়া শিক্ষার্থীদের মাঝে স্কুল ব্যাগ বিতরণ বর্তমান সরকার শিক্ষা ব্যবস্থাকে আধুনিক করেছে–রেজাউল করিম রোহিঙ্গা খায়রুল চন্দ্রিমা এলাকায় অর্ধশত রোহিঙ্গাকে স্থায়ী করেছেন চকরিয়ায় ফাঁস লাগিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

রোহিঙ্গা খায়রুল চন্দ্রিমা এলাকায় অর্ধশত রোহিঙ্গাকে স্থায়ী করেছেন

মাহবুবুর রহমান, কক্সবাজার ::
  • সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ জুন, ২০২৪
  • ১৬ পঠিত

রোহিঙ্গা খায়রুল ইসলামের তার জন্ম নিবন্ধন কক্সবাজার পৌরসভায় এনআইডি করেছে পটুয়াখালী জেলা থেকে বর্তমানে থাকেন চন্দ্রিমা এলাকার পূর্ব কলাতলীতে সেখানে আলিশান বাড়ি ঘর করে হয়েছেন স্থানীয় সমাজ কমিটির নেতা। কিছু প্রভাবশালীদের আশ্রয়ে নিয়মিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সাথে যোগাযোগ করে আনা নেওয়া করে ইয়াবা এছাড়াও মানবপাচারে সিদ্ধহস্ত তিনি। নিজেই স্বীকার করেছেন ক্যাম্পে যাওয়া আসা করেন এবং বিভিন্ন দেশ থেকে টাকা আসে তার কাছে। পূর্ব কলাতলী এলাকার মানুষের দাবী খায়রুল একাই অন্তত অর্ধশত রোহিঙ্গাকে এখানে স্থায়ী করেছেন। দ্রæত এই রোহিঙ্গা জঙ্গির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানান স্থানীয়রা।
পূর্ব কলাতলী এলাকায় স্থানীয় ব্যবসায়ী শাহ আলম, দিদার আলম সহ অনেকে বলেন, রোহিঙ্গাদের বিস্তার এখন জেলা ব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে বিশেষ করে চন্দ্রিমা এলাকায় সরকারি খাস জমিতে পাহাড় দখল করে রোহিঙ্গাদের ব্যাপক বিস্তার গড়ে উঠেছে। তার মধ্যে অন্যতম রোহিঙ্গা খায়রুল ইসলাম।

স্থানীয়দের দেওয়া তথ্য এবং কাগজপত্র পর্যালোচনা করে দেখা গেছে। রোহিঙ্গা খায়রুলের পিতার নাম আবদুল জব্বার, মাতার নাম কামরুন্নেছা। তার জন্মনিবন্ধন দেখা যাচ্ছে কক্সবাজার পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের জন্মনিবন্ধন নাম্বার ১৯৮৫৫২২২৬৬০৪১২৬৬৬৩। সেই ঠিকানাই তার পৌরসভার জাতীয়তা সনদ ও রয়েছে। কিন্তু তার এনআইডিতে দেখা যাচ্ছে পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া ছোটবলীর তলী বলিপাড়ায় । এনআইডি নাম্বার ৮২৫২১১৫৬৯৯। আবার রয়েছে একাধিক মানবাধিকার কর্মীর কার্ড।
স্থানীয়দের দাবী রোহিঙ্গা খায়রুল ইসলাম মুলত একজন রোহিঙ্গা জঙ্গি, তার বিরুদ্ধে ক্যাম্পের অনেক মামলাও আছে। সে ছদ্ধনামে এখানে থাকে। তার বাড়িতে প্রতিনিয়ত অন্তত ২০/৩০ জন রোহিঙ্গা মজুদ থাকে। তাদের স্থানীয় ভাবে বা দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে জন্মনিবন্ধন জাতীয় পরিচয়পত্র এবং পাসপোর্ট করে দেওয়াই হচ্ছে তার মূল কাজ।

এছাড়া বিদেশে নারী পাচার করা হচ্ছে তার পেশা। এখানে অনেক বার ইয়াবা পাচার করতে গিয়ে স্থানীয়দের দৌড়ানি খেয়েছে। তবে তার বাড়িতে মাঝেমধ্যে আইনশৃংখলা বাহিনীর পরিচয়ে লোকজন আসা করতেও দেখা যায়। মূলত এখানে পূর্ব কলাতলী সমাজ কমিটির সভাপতি আবদুল্লাহ সাধারণ সম্পাদক এখলাস সহ অনেকের সেল্টারে থাকে সে।
এ ব্যাপারে খায়রুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে প্রায় আসা যাওয়া করি। সেখানে আমার অনেক কাজ আছে,আত্বীয় স্বজন আছে।

তবে এনআইডি কিভাবে করেছেন কেন পটুয়াখালীতে করলেন এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি সেখানে ব্যবসা করি তাই পটুয়াখালীতে করেছি। পরে ঠিকানা পরিবর্তন করবো।
এ ব্যাপারে পূর্ব কলাতলী সমাজ কমিটির সাধারণ সম্পাদক এখলাস বলেন, খায়রুল ইসলামের এনআইডি পটুয়াখালী সেটা জানতাম না, তবে টেকনাফের এলাকার সেটা জানতাম। মূলত দীর্ঘদিন এখানে আছে তাই তাকে সমাজের সদস্য করা হয়েছে।
সভাপতি মো: আবদুল্লাহ বলেন,তার পিতাও এখানে থাকতো সে সূত্রে তাকে চিনি তবে রোহিঙ্গা এটা কিছুটা সত্য। আর বাকি বিষয়ে পরে কথা বলবেন বলে ফোন রেখে দেন।

এদিকে চন্দ্রিমা এলাকার স্থানীয় মানুষের দাবী গত কয়েক বছরে রোহিঙ্গা খায়রুল ইসলাম অন্তত অর্ধশতাধিক রোহিঙ্গাকে এখানে স্থায়ী করেছেন,অনেককে জমি সহ এখানে সরকারি পাহাড় দখল করে ঘরবাড়ি করে দিয়েছেন। তিনি এখানে রোহিঙ্গাদের বিস্তার ঘটাছে তাই দ্রæত খায়রুল ইসলামের জাতীয় পরিচয় পত্র বাতিল সহ তাকে যারা সহায়তা করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানান।

 

https://www.facebook.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2018 News Smart
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com